হ্রস্ব ই/অন্তঃস্থ য়-এর ব্যবহার

আমরা অনেকেই হ্রস্ব ই ও অন্তঃস্থ য়-এর ব্যবহার নিয়ে দ্বিধায় পড়ে যাই। মূলত উচ্চারণের ভুল থেকে ভুল বানানের সৃষ্টি হয়। লেখাটি তাদের জন্য।

উত্তম পুরুষের ক্ষেত্রে সবসময় ক্রিয়ায় হ্রস্ব ই ব্যবহৃত হয়।
আমি, আমরা উত্তম পুরুষের অন্তর্ভুক্ত।
দৃষ্টান্ত :
১. এখন আমি যাই।
২. আমরা সন্ন্যাসীরা আমিষ খাই না।

নাম পুরুষের ক্ষেত্রে সবসময় ক্রিয়ায় অন্তঃস্থ য় ব্যবহৃত হয়।
আমি, আমরা, তুমি, তোমরা বাদে বাকি সব হচ্ছে নাম পুরুষের অন্তর্ভুক্ত।
দৃষ্টান্ত :
১. স্নিগ্ধা বিদ্যালয়ে যায়।
২. সে ধীর পায়ে যায়।

তবে শরীরের কোনো অঙ্গ (বাহ্যিক অথবা মানবীয়) দ্বারা কোনো কাজ সম্পাদিত হলে ক্রিয়ায় অন্তঃস্থ য় বসে।
দৃষ্টান্ত :
১. আমার জিহ্বা স্বাদ পায় না।
২. একসময় ঢুলতে ঢুলতে আমাদের দেহ যেন শয্যায় যেতে চায়।
৩. তার মন আর ঘরে রয় না

কিন্তু উত্তম পুরুষের কোনো অঙ্গের (বাহ্যিক বা মানবীয়) সাথে ‘য়ে’, এ-কার (ে) যোগ হলে ক্রিয়ায় হ্রস্ব ই বসবে।
দৃষ্টান্ত :
১. আমি আর আগের মতো চোখে দেখতে পাই না।
২. আমার পায়ে আর আগের মতো বল পাই না।
৩. আমি মনে মনে এটাই চাই।

তবে কিছু ক্ষেত্রে ‘য়ে’, ‘এ-কার’ যোগ হলেও ক্রিয়ায় অন্তঃস্থ য় বসতে পারে।
দৃষ্টান্ত :
১. আমার আর তাকে মনে চায় না।

সুুপ্রিয় পাঠক,কখন কোথায় হ্রস্ব ই ও অন্তঃস্থ য় ব্যবহার করতে হবে সেটা নিয়ে আর সমস্যা নেই আশা করি।